পাইলসকে চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় হেমরোয়েডস (Hemorrhoids) বলে । মলদ্বারের নিচের অংশে এক ধরণের রক্তের গুচ্ছ–যেটা আঙ্গুরের মত ফুলে যায়, ফলে মল ত্যাগ করলে বা মল ত্যাগ না করলেও  সেখান থেকে প্রায়ই রক্তপাত হয় । তাকে পাইলস বলে ।

দীর্ঘদিনের পাইলস ক্যান্সারের কারন হয়

কী কারনে পাইলস হয়ঃ

সাধারণত কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে পাইলস এর জন্ম হয়। যারা দীর্ঘদিন ধরে কোষ্ঠকাঠিন্যতাই ভুগছেন তাদের পাইলস হওয়ার সম্ববনা ৯০% । অনেক সময় বাচ্চাদের গর্ভবস্থায় এটা বেশি হয় । আবার অনেকে যথাসময়ে মল ত্যাগ করেনা আটকে রাখেন এসব কারণেও পাইলস হয় ।  এছাড়া সাধারন কারনে হতে পারে । 

পাইলস এর আরোগ্যঃ

প্রথমে শরীর থেকে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে হবে ,সেজন্য প্রচুর পরিমানে সবুজ শাকসবজি খেতে হবে  এবং পানি পান করতে হবে । আমাদের  আঁশজাতীয় খাবার খাওয়া উচিত । প্রতিদিন মলত্যাগের অভ্যাস করতে হবে । কোন ধরণের অনিয়ম দেখাদিলে সাথে সাথে একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের কাছে যেতে হবে ।

দীর্ঘদিনের পাইলস ক্যান্সারের কারন হয় এবং পাইলস এর ভুল চিকিৎসায় আরো  জটিল রুপ ধারন করে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

six + three =